২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ |

মোহনপুরে ১০পরিবারের চলাচল বন্ধ রাস্তা খুলে দিতে ইউএনওর আশ্বাস

সুমন শান্ত , মোহনপুর প্রতিনিধি(রাজশাহী):
মোহনপুরের কেশরহাট পৌর এলাকার হরিদাগাছি গ্রামে রাস্তা বন্ধ করে স্থাপনা নির্মাণে সৃষ্ট উত্তেজনা নিরসনের উদ্যোগে নিয়েছেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার সানওয়ার হোসেন। শত বছরের পুরাতন রাস্তা দখল করে জোরপূর্বক বাড়িঘরসহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণে ১০টি পরিবারের চরম দূর্ভোগ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে তিনি সরোজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে দিনধার্য করে উপজেলা সার্ভেয়ারের মাধ্যমে জমি জরিপ করা হয়। এতে প্রমাণিত হয় বিবাদমান বাড়ি বেলকোনিসহ বিভিন্ন স্থাপনা রাস্তার উপর তৈরী করায় বেশকিছু পরিবারের চলাচল বন্ধ যায়। এজন্য জনসাধারণের চলাচলে দুর্দশা রোধে রাস্তার উপররের সকল স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেন তিনি। কিন্তু বাড়ির মালিক বার বার রাস্তার উপরের স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার টালবাহনায় সময় খেপন করেই চলেছেন।
গতকাল রোববার দুপুরের দিকে ভুক্তভুগি পরিবারের লোকজন রাস্তাটি সচল করার দাবী নিয়ে আবারো উপজেলা নির্বাহি অফিসারের কার্যালয়ে যান। এসময় তিনি মুঠোফোনে বাড়ির মালিককে আগামি শুক্রবারের মধ্যে স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেন। তারা নিজেরাই শুক্রবারের মধ্যে স্থাপনা সরিয়ে না নিলে আগামি শনিবার পৌরসভার মাধ্যমে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে রাস্তাটি মানুষের  চলাচলযোগ্য করে দেয়ার আশ্বাস দেন তিনি।
উল্লেখ্য, কেশরহাট পৌর এলাকার হরিদাগাছি গ্রামের মধ্যপাড়ায় শত বছরের পুরাতন একটি রাস্তা জোরপূর্বক দখল করে বাড়ি বেলকোনি নির্মাণ করেছেন গ্রামের মৃত লালমন সোনারের ছেলে রুস্তম আলী সোনার। বেলকোনি নির্মাণের সময় স্থানীয়রা বাধা দিলেও বাধা উপেক্ষা ভয়ভীতি দেখিয়ে দ্রƒত নির্মাণ কাজ শেষ করা হয়। এরপর পার্শবর্তী জমির মালিকরা তাদের নিজ নিজ জমি ঘিরে নিলে মানুষের যাতায়াত বন্ধ হয়ে যায়। জবর দখলকারি রুস্তম আলী সোনারের প্রাপ্ত জমির পরিমাণ ০.৯৩৭ একর। অথচ তিনি বেলকোনিসহ রাড়ি নির্মাণ করে দখল করে রেখেছেন ০.১০৪৫ একর জমি।
সংশিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র রুস্তম আলী প্রামাণিক  বলেন, রাস্তা দখলকারি রুস্তম আলী সোনার ও তার স্ত্রী দুজনই মামলাবাজ। অবৈধভাবে রাস্তার উপর বেলকোনি তৈরী করে রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। অন্যদিকে  ইউএনও মহোদয়ের কাছে বেলকোনি সরাতে চেয়ে গোপনে সাধারণ মানুষের নামে আবারো আদালতে মামলা দায়ের করেছে। এদের এমন আচরণে গ্রামের মানুষ অতিষ্ট হয়ে উঠেছে।
উপজেলা নির্বাহি অফিসার সানওয়ার হোসেন বলেন সরোজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সার্ভেয়ার দিয়ে জরিপ কাজ শেষ হয়েছে। রাস্তা দখলকারিদের আগামি শুক্রবারের মধ্যে তাদের স্থাপনা সরিয়ে নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে স্থাপনা সরিয়ে না নিলে আগামি শনিবার পৌরসভার মাধ্যমে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে বলে জানান তিনি।
(Visited ৮ times, ১ visits today)

আরও পড়ুন

হযরত খাজাবাবা (রঃ) ও জামে আওলিয়া কেরামের পথ পূণরুদ্ধার সম্মেলন অনুষ্ঠিত
বীর মুক্তিযুদ্ধা আব্দুল আলিম এর সহধর্মীনি নুরজাহান বেগম আর নেই
ফজলে রাব্বীর আসনে নৌকার হাল ধরতে চান যারা
মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
মুসলিম মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড সুন্নী মুভমেন্টের সমাবেশ
মহররম ঈমানী শোক ও ঈমানী শপথের মাস, আনন্দ উদযাপনের নয় – আল্লামা ইমাম হায়াত
এমপির বিরুদ্ধে উপজেলা চেয়ারম্যানকে কিল-ঘুষির অভিযোগ
বঙ্গবন্ধুর সমাধীস্থলে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের শ্রদ্ধাঞ্জলী