১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

এবং যেকোন দেশ ও দেশের রাজধানীর নাম

সন্ধান মিলেছে জীবন্ত ক্যালেন্ডার; বলতে পারেন ২০০ বছরের দিন, মাস, তারিখ

তুষার আহমেদ, চুয়াডাঙ্গাঃ

বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী, নেই কোন প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাও। কিন্তু অকপটে বলে দিতে পারে পৃথিবীর সকল রাষ্ট্র, রাষ্ট্রের রাজধানীসহ রাষ্ট্র প্রধানদের নাম নখদর্পণে। শুধু তাই নয়, ১০০ থেকে ২০০ বছরের মধ্যে সাল ও তারিখ বললে সেই দিন কি বার ছিলো? তাও বলে দিতে পারে অনায়াসে।

এমনই অলৌকিক ও বিরল এক প্রতিভার সন্ধান মিলেছে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায়। বিরল প্রতিভার অধিকারী কিশোরকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমত চলছে তোলপাড়। গ্রামের লোকজন তাকে আদর করে নাম দিয়েছে ‘জীবন্ত ক্যালেন্ডার’।

চুয়াডাঙ্গার জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল ডাউকী গ্রামের আশরাফ আলী ও আছমা আহম্মেদ দম্পতির তিন ছেলে মেয়ের মধ্যে বড় ছেলে তাইফ আহম্মেদ। তার বয়স যখন ৫ বছর তখন থেকেই  তাইফের অলৌকিক প্রতিভার বিষয়টি নজরে আসে পরিবারের।

তাইফের মা আছমা আহম্মেদ জানান, বুদ্ধি প্রতিবন্ধী হওয়ায় স্কুলে যাওয়ার সুযোগ হয়নি তাইফের। কিন্তু তারপরও বাড়ির আঙ্গিনায় আপন মনে খড়-কুটি দিয়ে স্বরলিপি অ আ ক খ আপন মনে লিখতো তাইফ।

এছাড়া তার তেমন প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাও নেই। তারপরও সে তার নিজ বুদ্ধিমত্তায় অলৌকিক শক্তিতে প্রথিবীর সমস্ত দেশের নাম, রাষ্ট্রপ্রধানের নাম ও রাজধানীর নাম বলতে পারে। আছমা আহম্মেদ আরও জানান, শুধু রাষ্ট্র নয় ১০০ থেকে ২০০ বছরের মধ্যে মধ্যে যে কোন সাল ও তারিখ বললে ওই দিন কি বার ছিলো তা দ্রুতই বলে দিতে পারে তাইফ।

এক প্রতিবেশী জানান, আগে গ্রামের লোকজন কিশোর তাইফকে পাগল বলতো। কিন্তু তার বিস্ময়কর বুদ্ধিমাত্রা ও অসাধারণ মেধাশক্তির কারণে গ্রামের লোকজন তাকে ভালবেসে জীবন্ত ক্যালেন্ডার বলে ডাকে। এর বাইরে গ্রামের যে কারো মোবাইল বা কম্পিউটার বিকল হলে অনায়াসে মেরামত করার মত সক্ষমতাও অর্জন করেছেন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এই কিশোর।

অন্য আর এক প্রতিবেশী জানান, কিশোর তাইফের এমন বিস্ময়কর যাদুর খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জড়িয়ে পড়লে প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে মানুষজন আমাদের গর্ব জীবন্ত ক্যালেন্ডার তাইফকে দেখতে আসে।

বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোর তাইফের এমন প্রতিভাকে কাজে লাগাতে পারে রাষ্ট্র। তাকে প্রতিবন্ধী না ভেবে নিজ পরিচয়ে পরিচিত করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান তাইফের পরিবারের।

তাইফের বাবা আশরাফ আলীর মতে, তাইফের ভিতরে অলৌকিক শক্তি বিদ্যমান। তিনি অবশ্য তার ছেলেকে প্রতিবন্ধী মানতে নারাজ। তার দাবি বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করেন। তার দাবি তার ছেলের এমন প্রতিভা রাষ্ট্রীয়ভাবে কাজে লাগানো গেলে হয়তো দেশ উপকৃত হবে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

ফজলে রাব্বীর আসনে নৌকার হাল ধরতে চান যারা
মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
মুসলিম মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড সুন্নী মুভমেন্টের সমাবেশ
মহররম ঈমানী শোক ও ঈমানী শপথের মাস, আনন্দ উদযাপনের নয় – আল্লামা ইমাম হায়াত
এমপির বিরুদ্ধে উপজেলা চেয়ারম্যানকে কিল-ঘুষির অভিযোগ
বঙ্গবন্ধুর সমাধীস্থলে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের শ্রদ্ধাঞ্জলী
অসহায় মানুষের মাঝে মাংস বিতরণ করল ‘জীবন আলো’
নোয়াখালীতে প্রবাসীকে মারধর ও লুটপাটের অভিযোগ