১৬ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

প্রিয়নবী মানবীয় অসুস্থতা ও আরোগ্যের ঊর্ধ্বে: আল্লামা ইমাম হায়াত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাহার শোম্বা নামে এই ধরনের কিছু ইসলামে নেই। এসব পালনের শরিয়তগত ভিত্তি কোনো ভিত্তি নেই। কোরআনুল করীম ও হাদিস শরীফে এটা পালনের কোনো নির্দেশ নেই এবং মহান মকবুল সাহাবায়ে কেরাম রাদিআল্লাহু আনহুম এ দিবস পালনের কোনো নজির নেই। কিছু মূর্খ লোক যা বলে এটা পালনের কথা বলে তা ভূল বর্ণনা ও ভূল ব্যাখ্যা।

কিছু দলিলহীন দোয়ার বইতে এ দিবসে কিছু দোয়া দরুদ শরীফ পড়ার কথা বলা আছে, দোয়া দরুদ শরীফ সবসময় পড়া ভালো, দোয়া দরুদ শরীফ প্রতিদিন প্রতি মুহূর্ত পড়া যায়। এ দিবস ঘটনা করে কোনো পালনের বিষয় নয়। এটা পালনের উপলক্ষ হিসেবে কিছু মূর্খ লোক যা রটনা করেছে তা ঠিক নয়।

ঈমানদারকে নবী রাসুল আলাইহিমুস সালামদের সবকিছু শাণে নবুওয়াত শাণে রেসালাতের দৃষ্টি ও ভিত্তিতে দেখতে হয়, বাহ্যিক মানবীয় স্থুল জড় দৃষ্টিতে নয়। মহান শাণে রেসালাতের অতুলনীয় মহিমা বুঝতে অক্ষম কিছু জাহেল মোল্লা বলে থাকে যে, আল্লাহতাআলার হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এ দিন সুস্থ হয়েছেন। নাউজুবিল্লাহ।

কিন্তু সত্য এই যে, আল্লাহতাআলার রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কোনো মানবীয় অসুস্থতা নেই এবং আরোগ্যের প্রশ্নও নেই, বাহ্যিকভাবে যেটা দেখা গেছে সেটা রোগজনিত অসুস্থতা নয়, তা কেবলমাত্র দুনিয়া থেকে জাহেরী অন্তরালের পূর্বে নিজের প্রিয় উম্মতের সীমাহীন প্রেম আর মায়ায় ও দ্বীন মিল্লাত মানবতার প্রতি অসীম দয়ায় ভবিষ্যতের চিন্তায় কষ্ট ও অধীরতা এবং জাহেরী শেষ সময়ে আল্লাহতাআলা অতুলনীয় নিকটবর্তী ও অশেষ তাজাল্লিতে আবৃত করে রাখার মকামে রেসালাতগত এক অতুলনীয় প্রতিক্রিয়া যা মানব জ্ঞানের অতীত।

জাহেরী ভাবে অসুস্থ মনে হলেও সেটা অসুস্থতা নয় কোরবতে জাতে ইলাহীর এক অসীম হাল, যা প্রশান্ত হয় “বালির রাফিকিল আলা” তথা আল্লাহতাআলা তাঁর নিজের কুদরত রহমত মহাব্বতের অতুলনীয় অসীম মোবারক বুকে নিজের নুর ও পরম মাহবুবকে একাকার মিলিত করে নেয়ার মাধ্যমে, যা আগেও ছিলো কিন্তু এটা আরো খাস হাল ও শাণ।

আল্লাহতাআলার হাবীব রাহমাতাল্লিল আলামীন সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের নাম মোবারকের বরকতে মানুষ সকল রহমত ও শেফা লাভ করে। আল্লাহতাআলা কোরআনুল করীমকে শেফা উল্লেখ করেছেন আর কোরআনুল করীমেরও মূল ও সকল নূরের মূল ধারক আল্লাহতাআলার হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

চার শোম্বার নামে প্রচলিত এসব কাহিনী আল্লাহতাআলার হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শানের খেলাফ ঈমান বিরোধী কল্প কাহিনী । আল্লাহতাআলার হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহতাআলার নুর এবং বাহ্যিক সব অবস্থার ঊর্ধ্বে মানবীয় অবস্থার ঊর্ধ্বে।

চাহার শোম্বা বলতে কিছু কোরআনুল করীম ও হাদিস শরীফে নেই। এটা এমনিতেই ফার্সি টার্ম যার অর্থ মাসের শেষ বুধবার যার সাথে আল্লাহতাআলা ও তাঁর হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বা ইসলামের কোনো বিষয়ের সম্পর্ক নেই।

এসব পালন ঈমানসম্মত ভাবে শাণে রেসালাতে ইলাহি বুঝতে অক্ষমতা ও বস্তুবাদি দৃষ্টিকোণ। এসব পালন গোমরাহী ও ঈমান হানিকর। নাউজুবিল্লাহ ।

— আল্লামা ইমাম হায়াত
( ইসলামের মূল ধারা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের প্রকৃত ধারার এ যুগের #পূণরূজ্জীবনকারী এবং বিশ্ব সুন্নী আন্দোলনের #প্রতিষ্ঠাতা ও বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লবের প্রবর্তক)

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
মুসলিম মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড সুন্নী মুভমেন্টের সমাবেশ
মহররম ঈমানী শোক ও ঈমানী শপথের মাস, আনন্দ উদযাপনের নয় – আল্লামা ইমাম হায়াত
করোনায় সারাদেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৯৮
বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
পেপসির সঙ্গে বিষ খাইয়ে খুন, যুবকের যাবজ্জীবন
চাল আমদানির সুযোগ পাচ্ছে ১২৫ প্রতিষ্ঠান
এশিয়ান টিভির ফেনী জেলা প্রতিনিধি হলেন সাংবাদিক সোহাগ