১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

রাবি উপ-উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে মশাল মিছিল

রাবি প্রতিনিধি
চাকরি নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপ-উপাচার্য অধ্যাপক জাকারিয়ার দর কষাকষির ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনায় তাঁর পদত্যাগ দাবিতে মশাল মিছিল করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার রাতে মিছিলটি রাকসু ভবন থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ বুদ্ধিজীবি চত্বরে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশ থেকে বৃহস্পতিবার বেলা এগারোটায় বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দেয়া হয়।

সমাবেশে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ রাবি শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক মুরর্শিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় সমাবেশে শাখা ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি রাশেদ রিমন বলেন, উপ-উপাচার্যে ফোনালাপের ঘটনাটি দেশজুড়ে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। তাঁকে উপ-উপাচার্য হিসেবে বহাল রাখা হয়েছে। তাঁকে স্বপদ থেকে সরিয়ে দেয়া হোক।

সমাবেশ রাকসু আন্দোলন মঞ্চের সমন্বয়ক আব্দুল মজিদ অন্তর বলেন, উপ-উপাচার্যের অডিওর ব্যপারে উপাচার্যকে বলেছিলাম। এ বিষয়ে দ্রুত একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে তিনি আমাদেরকে আশ্বাস দিয়েছেন। কিন্তু কবে এ কমিটি গঠন করা হবে এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানান নি। ওই অডিওর ঘটনায় উপ-উপাচার্যকে প্রমাণ করতে হবে যে তিনি আর্থিক লেনদেনে জড়িত নন। তিনি জড়িত না হলে যারা যুক্ত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
অন্তর দাবি করে বলেন, প্রশাসন স্বীকার করেছে যে আইন বিভাগের ওই নিয়োগে আর্থিক লেনদেনের করা হয়েছে। বিভাগের সভাপতি এ লেনদেনের সাথে জড়িত বলে বলা হয়েছে। যেই জড়িত হোক না কেন সকলকে ব্যবস্থা গ্রহণের আওতায় আনতে হবে। প্রশাসন তাদের তদন্ত চালিয়ে যাক। আমরাও আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাবো। আমরা এর সুষ্ঠু বিচারের জন্য লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাবো। আগামীকাল বেলা এগারোটায় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সর্বস্তরের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আমরা আন্দোলন শুরু করবো। এসময় তিনি এ আন্দোলনে সকল সাধারণ শিক্ষার্থীদের অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

মশাল মিছিলে রাবি শাখা সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, রাকসু আন্দোলন মঞ্চ ও ছাত্র ফেডারেশনের নেতাকর্মী ছাড়াও সাধারণ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে উপাচার্যের ‘জয় হিন্দ’ স্লোগান ও উপ-উপাচার্যের শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যর অভিযোগে দ্রুত পদত্যাগের দাবি জানিয়েছে শাখা প্রগতিশীল ছাত্রজোট। গতকাল বুধবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয় আমতলা চত্বরে সমাবেশে এ দাবি জানান।

এর আগে গত ২৬ সেপ্টেম্বর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনে ইতিহাস বিভাগ ও জন ইতিহাস চর্চা কেন্দ্র তিনদিনব্যাপী আর্ন্তজাতিক সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্য জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগানের পর ‘জয় হিন্দ’ স্লোগান দেন উপাচার্য। এটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার সারাদেশে বিভিন্ন ভাবে সমালোচনা ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়। এর ঠিক দু’দিন পরে রাবি উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়ার শিক্ষক নিয়োগে ৫৫ সেকেন্টের অডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। সেখানে চাকরি প্রার্থীর স্ত্রীর নিকট দর কষাকষি হয়। এরপর থেকেই ক্যাম্পাসে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে সমালোচনার নতুন রুপ নেয়। এরই প্রেক্ষিতে গতকাল ধারাবাহিক আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়।#

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

ফজলে রাব্বীর আসনে নৌকার হাল ধরতে চান যারা
মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
মুসলিম মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড সুন্নী মুভমেন্টের সমাবেশ
মহররম ঈমানী শোক ও ঈমানী শপথের মাস, আনন্দ উদযাপনের নয় – আল্লামা ইমাম হায়াত
এমপির বিরুদ্ধে উপজেলা চেয়ারম্যানকে কিল-ঘুষির অভিযোগ
বঙ্গবন্ধুর সমাধীস্থলে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের শ্রদ্ধাঞ্জলী
অসহায় মানুষের মাঝে মাংস বিতরণ করল ‘জীবন আলো’
নোয়াখালীতে প্রবাসীকে মারধর ও লুটপাটের অভিযোগ