২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

প্রাণাধিক প্রিয়নবীর শুভাগমন ঈদে আজম – সত্য ও মানবতার অনন্ত মহাবিপ্লব

ইসলাম:

শানে রেসালাত সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে অবলম্বন করে দয়াময় আল্লাহতাআলার সম্পর্ক ই জীবনের সত্য (ঈমানিয়াত) এবং জীবনের দিশা-অধিকার-গুণ-জ্ঞান-কল্যাণ-নিরাপত্তা-বিকাশই মানবতা (ইনসানিয়াত) যা প্রিয়নবীর শুভাগমনেরই দান। দয়াময় আল্লাহতাআলা ও তাঁর প্রিয়তম হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের প্রেমেরই মর্মধারা সত্য যার রূপ মানবতা। প্রিয়নবীর শুভাগমন সত্য আর জীবন একাকার হয়ে যাওয়া এবং জীবন তার ঠিকানা ও গন্তব্য লাভ করা।

সত্য ও মানবতার বিপ্লবই জীবনের মুক্তি যার উৎস নূরে এলাহী রেসালাতে এলাহী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম। সত্য ও মানবতার (ঈমানিয়াত ও ইনসানিয়াত) আত্মিকভিত্তি ও রাজনৈতিক কাঠামো (খেলাফতে ইনসানিয়াত) ছাড়া জীবন মিথ্যা ও বিনাশের কবলে রূদ্ধ হয়ে যায়। দুনিয়ায় সব চেয়ে বড় সংকট সত্য ও মানবতার সংকট যার কারণ মিথ্যা ও পাশবতার আগ্রাসন ও তাদের স্বৈরদস্যুতার কাঠামো। জীবন ও জগত আজ মিথ্যা ও অবিচারের ধারা জবরদখল করে রেখেছে এবং সত্য ও মানবতা আজ পরাজিত ও উৎখাত হয়ে পড়েছে। মানবতার অস্তিত্ব রক্ষায় ঈদে আজমের বিপ্লব তথা সত্য ও মানবতার পুণরুজ্জীবন ও পুণপ্রতিষ্ঠা আজ সময়ের সবচেয়ে জরুরী প্রয়োজন। সত্যের বিপ্লব মানে মিথ্যার কাঠামো ভেঙ্গে সত্যের মুক্ত প্রবাহ এবং মানবতার বিপ্লব মানে বস্তুর উর্ধ্বে জীবনের সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠার ধারায় সব মানুষের জীবনের অধিকার-জীবনের রাষ্ট্র-জীবনের দুনিয়া, যা ব্যতীত সত্য প্রবাহ রূদ্ধ হয়ে মিথ্যার স্বৈর দস্যুতার আধিপত্য তথা জীবনের উর্ধ্বে বস্তুবাদের সার্বভৌমত্ব বা মুলুকিয়ত কায়েম হয়ে সত্যের বিরুদ্ধে মিথ্যার সার্বভৌমত্ব কায়েম হয়ে যায় এবং জীবন-অধিকার-স্বাধীনতা রূদ্ধ হয়ে খুন-জুলুম-শোষন-পরাধীনতা-পাশবতা- বর্বরতার দুনিয়া তৈরি হয়, যা থেকে উদ্ধারের জন্যই দুনিয়ায় প্রিয়নবীর শুভাগমন তথা সত্য ও মানবতার মুক্তির সূর্য্যােদয় ঈদে আজম।

ঈদে আজমের লক্ষ্য সত্য ও মানবতার বিপ্লব সাধনের প্রধান বাধা বিভিন্ন ধর্মের নামে অধর্ম উগ্রবাদের একক গোষ্ঠিবাদী স্বৈররাষ্ট্র কাঠামো এবং বস্তুবাদী চেতনার বিষফল বস্তুবাদী উগ্র জাতীয়তাবাদের একক গোষ্ঠিবাদী রাষ্ট্র কাঠামো ও তাদের অবরূদ্ধ দুনিয়া যা ররুদ্ধতা থেকে মুক্তির একমাত্র উপায় একক গোষ্টির স্বৈরতা মুক্ত সর্বজনীন মানবতার রাষ্ট্র ও মানবিক সাম্যের ভিত্তিতে মুক্ত মানবতার অখন্ড দুনিয়া খেলাফতে ইনসানিয়াত, যা ব্যতীত সত্য ও মানবতার দুনিয়া অসম্ভব।

ঈদে আজমের দান কলেমার আলোকধারায় দুনিয়ায় প্রতিটি মানুষের মানবিক সত্ত্বা-অধিকার-স্বাধীনতা-নিরাপত্তা-মর্যাদা ও দুনিয়ায় সব সম্পদের উপর সব মানুষের মালিকানা এবং সত্য ও জ্ঞানের মুক্ত প্রবাহ যা কার্যকরী হওয়ার একমাত্র উপায় খেলাফতে ইনসানিয়াত (authority of life and state and world of universal humanity)।
ঈদে আজম উদযাপন করতে হবে অবরূদ্ধ সত্যের মুক্ত প্রবাহের লক্ষ্যে, নিপীড়ীত মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে, হারানো স্বাধীনতার পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে, নিছক লক্ষ্যহীন আচার অনুষ্ঠান হিসেবে নয়, হক-বাতেল একাকার করে নয়, ইনসানিয়াত-হাইওয়ানিয়াত আপোষ করে নয়, বাতিল জালিম অপশক্তির কাঠামো টিকিয়ে রাখার সহায়তা হিসেবে নয়। যথার্থ লক্ষ্যে ঈদে আজম পালিত না হওয়া মিল্লাত ও মানবতার অন্ধকার ও বিণাশের গহ্বরে নিক্ষিপ্ত হওয়া।

প্রিয়নবীর দেয়া মুক্তির পথ ঈমান দ্বীনের আসল ধারা আহলে সুন্নাত বা সুন্নীয়ত মানে সর্ব বাতিল থেকে মুক্ত থেকে আকিদা-আদর্শ-আধ্যাত্মিক-রাজনৈতিক-মানবিক সব দিকে ভাইবোন সবাই মিলে দ্বীনের পূর্ণাংগ ধারায় কলেমার আলোক চেতনায় মহান শাহাদাতে কারাবালার নীতিমালায় চিরবিশ্বস্ত হয়ে এগিয়ে চলা। ঈমান দ্বীনের মূলধারা আহলে সুন্নাত মানে প্রাণাধিক প্রিয়নবীর শান ও প্রেমে প্রাণপণ উৎসর্গীকৃত সত্তা যা কোন কুফর-জুলুম-মুলুকিয়ত কবুল করতে পারে না, মুলুকিয়ত নয় খেলাফতই মহামান্য খোলাফায়ে রাশেদীন ও মহান মকবুল সাহাবায়ে কেরাম রাদিআল্লাহু আনহুমের পথ তথা সুন্নীয়তের ধারা।
নিকট অতীতে আমরা প্রিয়নবীর শুভাগমন ঈদে আজমের লক্ষ্য ভুলে দিশাহীন অপূর্ণাংগ উদযাপন, পবিত্র কলেমার অঙ্গীকার ও মহান শাহাদাতে কারবালার চেতনা ভুলে মর্মহীন উচ্চারণ, প্রাণপ্রিয় আহলেবায়েত-মহামান্য খোলাফায়ে রাশেদীন-মকবুল সাহাবায়ে কেরাম- সত্যের ইমামবৃন্দ ও মহান আওলিয়া কেরামের নির্দেশিত দ্বীনের আধ্যাত্মিক ও রাজনৈতিক এবং ভাইবোন সবাইকে নিয়ে ঐকবদ্ধ পূর্ণাংগ ধারা ভুলে অরাজনৈতিক বা বিভিন্ন বাতিলের ভ্রান্ত অপরাজনীতির অনুসরণ, ঈমান-দ্বীন-খেলাফতের বিপরীতে বিভিন্ন বাতিল ফেরকা ও বস্তুবাদী মতবাদ এবং তাদের স্বৈরদস্যুতা মুলুকিয়তের সহযোগী হয়ে পড়ায় সত্য ও মানবতার ধারা উৎখাত হয়ে আমাদের সব কিছু আজ বিভিন্ন বাতিল জালিম অপশক্তির জবর দখলে চলে গেছে। কেবলাভূমি আল আরব এবং আল আকসা সহ সারা দুনিয়া আজ বাতিলের দখলে বিপন্ন।

ঈমান-দ্বীন-মিল্লাত-মানবতার এ সংকট কালে প্রিয়নবীর আশেক সকল মুমিন ভাইবোন সবার কাছে আকুল আবেদন- আসুন, তাওহীদ রেসালাত থেকে বিচ্ছিন্নকারী বস্তবাদের আঁধারে বন্ধী না থেকে কোন ভেজালে দ্বীন-জীবন নষ্ট না করে সর্ববাতিলের কুফরিয়ত-হাইওয়ানিয়াত-মুলুকিয়াত থেকে মুক্তির সাধনায় সত্য ও মানবতা তথা ঈমানিয়াত ও ইনসানিয়াতের বিপ্লবের লক্ষ্যে প্রাণাধিক প্রিয়নবীর প্রেমের স্রোত ধারায় শরিক হই, প্রিয়নবী শুভাগমন ঈদে আজমের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে ঈমানী দায়িত্বে একাকার হয়ে যাই, সব ভ্রান্ত দলমত ছেড়ে আল্লাহতাআলার উদ্দেশ্যে একমাত্র প্রিয়নবীর হয়ে যাই। ঈদে আজম পালন করুন – সত্য ও মানবতার দুনিয়া কায়েম করুন।

আল্লামা ইমামা হায়াত
(বস্তুর উর্ধ্বে মানবসত্তার প্রবক্তা এবং বিশ্ব সুন্নী আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লবের প্রবর্তক)

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

মাত্র কয়েক ঘণ্টা পর সাধারণের জন্য উন্মুক্ত হবে পদ্মা সেতু
পদ্মা সেতু সাঁতরে মঞ্চে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলল কিশোরী
মাদারীপুর শিবচরের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী
টোল দিয়ে পদ্মা সেতু পার হলেন প্রধানমন্ত্রী
২ পরিবর্তন নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
‘পদ্মা সেতু’দেশপ্রেমিক জনগণের আস্থা ও সমর্থনের ফলেই আজকে উন্নয়ন : প্রধানমন্ত্রী
রাত পোহালেই স্বপ্নের মাহেন্দ্রক্ষণ
পদ্মা সেতু উদ্বোধনে দাওয়াত পেলেন প্রধান বিচারপতিসহ সব বিচারপতি