২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করার জন্য আগে ঘরের শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা:

বিএনপি এখন ভাটায় পড়ে গেছে। তাদের আন্দোলনে ভাটা, নির্বাচনেও ভাটা। আর কখনো তাদের জোয়ার ফিরবে না। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বিশাল কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেছেন। তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, সবাই এক থাকবেন; নিজের দল ভারী করার জন্য সুবিধাবাদীদের দলে টানবেন না। দুঃসময়ের কর্মীরাই হচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রাণ। দুঃসময়ের এই ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করুন। ওয়ার্ড কমিটি পর্যন্ত সব কমিটি করে ফেলুন। তৃণমূল পর্যন্ত সব কমিটিতে ত্যাগী নেতাকর্মীদের অগ্রাধিকার দেবেন। সব কমিটি শেষ করে জেলা কমিটি করতে হবে। ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, আপনারা আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করে তুলুন। আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ করুন। ঐক্যবদ্ধ থেকে আওয়ামী লীগকে বেঁচে রাখতে হবে। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বাঁচবে না, গণতন্ত্র বাঁচবে না; উন্নয়ন বাঁচবে না। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের অর্জন হবে না। তিনি বলেন, ক্ষমতার অহংকার কেউ দেখাবেন না। জনগণের সাথে বিনয়ী হয়ে রাজনীতি করুন। জনগণের উন্নয়ন করে জনগণের সাথে থাকবেন। এটাই শেখ হাসিনার রাজনীতি।

কক্সবাজারের উন্নয়ন তুলে ধরে সেতুমন্ত্রী বলেন, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে শুরু করে কক্সবাজারের সবখানে উন্নয়ন হচ্ছে। কোথাও রাস্তা ও ব্রিজ খুব বেশি অসম্পূর্ণ নেই। কক্সবাজারে চার লেনের সড়ক হচ্ছে। মেরিন ড্রাইভ করে দিয়েছেন শেখ হাসিনা। যদি না করতেন, তাহলে রোহিঙ্গা সংকটে দেশি-বিদেশি সাহায্য সংস্থার লোকজনের প্রতিবন্ধকতা হয়ে চরম মানবিক সংকট তৈরি হতো। সরকারের উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত থাকবে। কক্সবাজারকে আমরা বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রাণকেন্দ্রে পরিণত করতে চাই। সে লক্ষ্যে আমরা এখানে অবিরাম কাজ করে যাচ্ছি। শুদ্ধি অভিযান সম্পর্কে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করার জন্য আগে ঘরের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তার সৎসাহস আছে বলেই তিনি আপন ঘর থেকে এই শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন। কোনো নেতাকর্মীদের তিনি দুর্নীতি, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি এবং মাদক ব্যবসা করতে দেবেন না।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে মন্ত্রী বলেন, মানবিক দিক বিবেচনা করে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছিলেন মানবতার নেত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু ১১ লাখ রোহিঙ্গার কারণে কক্সবাজারের মানুষ আজ বিপর্যস্ত। মানবিক রোহিঙ্গারা আজ আমাদের মানবিক সংকটের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনাদের কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু শেখ হাসিনা বসে নেই। তিনি রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দিতে ভারত, চীনসহ বিশ্ব সম্প্রদায়কে দিয়ে মিয়ানমারকে চাপ প্রয়োগ করাচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে তিনি সফলও হচ্ছেন। মিয়ানমার তাদের দাম্ভিকতা নরম করেছে।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মী সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা মোস্তাক, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু তালেব, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ নজিবুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কর, জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি রহিম উদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি আরিফুল মাওলা, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা ও সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা তাহের ও জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ হোসাইন তানিম। সভা সঞ্চালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের উপপ্রচার সম্পাদক এম এ মনঞ্জুর। এতে জেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

ককটেল বিস্ফোরণ কাদের মির্জার সাজানো নাটকঃ কোম্পানীগঞ্জ আ’লীগ
এবার কাদের মির্জার ছোট ভাইয়ের নেতৃত্বে বাস ভাংচুর
শপিংমল-দোকান খোলার সিদ্ধান্ত
রফিকুল ইসলাম মাদানীকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ
সেতুমন্ত্রীর পক্ষে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ বিতরণ
সোমবার থেকে এক সপ্তাহের লকডাউন
করোনার স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে মাইক হাতে ছুটছেন বন্দর ইউএনও
রুপসী বাংলা ব্লাড ডোনেট ক্লাবের ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং নির্নয় ক্যাম্প