২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

রানের পাহাড় টপকাতে হবে জিম্বাবুকে

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেছেন লিটন দাস। টাইগার ওপেনারের সেঞ্চুরিতে ভর করে ৩২১ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। ফলে জয়ের জন্য সফরকারী জিম্বাবুয়েকে করতে হবে ৩২২ রান।

এর আগে রবিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি। ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩২১ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।

ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস উড়ন্ত সূচনা এনে দেন। ওপেনিংয়ে ৬০ রান তোলেন এ জুটি। ব্যক্তিগত ২৪ রানে উইসলি মাধেভেরের এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন তামিম। তবে লিটন দাস ১০৫ বলে ১২৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। তবে সেঞ্চুরির পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ে টান পড়ে লিটনের। এমনই অবস্থা হয় যে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে মাঠের বাইরেই চলে যেতে হলো ডানহাতি এই ওপেনারকে।
এদিকে, আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়ে এলবিডব্লিউ হয়ে মাঠ ত্যাগ করেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তিনোতেন্দা মুতম্বোদজির বলে ফেরার আগে ২৯ রান করেন তিনি। এছাড়াও ১৯ রানে বিদায় নেন মুশফিকুর রহিম।

লিটনের ওঠে যাওয়ার পর বাংলাদেশকে বড় সংগ্রহের পথে এগিয়ে নিয়ে যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মোহাম্মদ মিঠুন। মাহমুদউল্লাহ ক্রিস এমপোফুর বলে ব্যক্তিগত ৩২ রানে ফিরলেও ওয়ানডে ক্যারিয়ারের পঞ্চম ফিফটি তুলে নেন মিঠুন। তবে এরপর বেশিক্ষণ টিকেননি তিনিও। ব্যক্তিগত ৫০ রানে এমপোফুর দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি।

তবে শেষদিকে দীর্ঘদিন পর দলে ফিরে ঝড় তুলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন। ১৫ ‍বলে ৩ ‍ছক্কায় ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। ১ ছক্কায় ৭ রানে আউট হোন মেহেদী হাসান মিরাজ। ব্যাট হাতে মাঠে নামলেও কোনো বলের মুখোমুখি হননি মাশরাফি।

জিম্বাবুয়ের বোলারদের মধ্যে ক্রিস্টোফার এমপুফু নিয়েছেন ২টি উইকেট।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

বাড়ছে করোনা আসছে কঠোর নির্দেশনা!
মাত্র কয়েক ঘণ্টা পর সাধারণের জন্য উন্মুক্ত হবে পদ্মা সেতু
পদ্মা সেতু সাঁতরে মঞ্চে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলল কিশোরী
মাদারীপুর শিবচরের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী
টোল দিয়ে পদ্মা সেতু পার হলেন প্রধানমন্ত্রী
২ পরিবর্তন নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
‘পদ্মা সেতু’দেশপ্রেমিক জনগণের আস্থা ও সমর্থনের ফলেই আজকে উন্নয়ন : প্রধানমন্ত্রী
রাত পোহালেই স্বপ্নের মাহেন্দ্রক্ষণ