৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

খাদ্য সংকট মেটাতে জায়লস্কর ইউনিয়নে আউশ আবাদ কার্যক্রম শুরু

করোনাভাইরাসে খাদ্য ঘাটতি মেটাতে দাগনভূঞার জায়লষ্কর ইউনিয়নে ৫০ একর জমিতে আউশ ধান চাষাবাদের লক্ষ্যে বীজতলার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শনিবার সকালে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল হাসান।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মিলন জানান, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে জায়লষ্কর ইউনিয়নে যেন খাদ্য ঘাটতি না দেখা দেয় তাই আগাম প্রস্তুতি হিসেবে ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে অনাবাদি জায়গার মালিকদের সাথে কথা বলে ৫০ একর জায়গা নির্ধারণ করা হয়। উপজেলা কৃষি অফিসের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে এতে আউশ ধান উৎপাদিত হবে।উৎপাদিত খাদ্যশস্যের প্রতি বর্গ হারে মালিকরা একটি অংশ পাবে। আর বাকী খাদ্য শস্যের ইউনিয়নের গরীবদের মাঝে বিতরন করা হবে।

তিনি আরো জানান, প্রাথমিকভাবে ৫০ একর দিয়ে আমরা উৎপাদন শুরু করছি। পরবর্তীতে আরো ৫০ একর জায়গা নির্ধারনের প্রস্তুতি চলছে। যাতে আউশ ধান চাষ করা হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: রাফিউল ইসলাম জানান, করোনার প্রভাবে সরকারের আউশ প্রনোদনার অংশ এটি। ৫০ একর জমির জন্য উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাধ্যমে কৃষক প্রতি ০৫ কেজি বীজ, ২০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার দেওয়া হয়েছে। আমরা আশা করছি আগামি ১০০ দিনে এই ৫০ একর জমি থেকে প্রায় ৫০-৫৫ মেট্রিকটন চাল উৎপাদন হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রবিউল হাসান জানান, সরকারের কৃষি প্রনোদনা কাজে লাগিয়ে চলতি আউশ মৌসুমে যেসব অনাবাদি জমি রয়েছে জায়লষ্কর ইউনিয়ন পরিষদের মতো সকলে ধান উৎপাদন করে উদাহরণ সৃষ্টি করা উচিত। তাহলে আমরা বর্তমান পরিস্থিতিতে খাদ্য সংকটে পড়বো না।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আদিত্য মজুমদার, এএইও, অত্র ইউনিয়নের এসএএও রনী মজুমদার ও মোশারফ হোসেন সহ আরও অনেকে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, না মানলে শাস্তি
ডলারের বিপরীতে আবারও কমলো টাকার মান
ঈদ সামনে রেখে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন চালু ৬ জুলাই
পদ্মা সেতুর বুথ ব্যারিয়ারে বাসের ধাক্কা
খাবার নিয়ে বন্যার্তদের পাশে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ
বাড়ছে করোনা আসছে কঠোর নির্দেশনা!
মাত্র কয়েক ঘণ্টা পর সাধারণের জন্য উন্মুক্ত হবে পদ্মা সেতু
পদ্মা সেতু সাঁতরে মঞ্চে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলল কিশোরী