২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ |

করোনা ঝুঁকিতে ঢাকা শহর

প্রায় সারাদেশেই সংক্রমণ ঘটেছে করোনা ভাইরাসের। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১৫ হাজার ৫৫৩ জন শনাক্ত হয়েছে শুধু ঢাকা সিটিতে। রাজধানীর যেসব এলাকায় করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে তারমধ্যে মিরপুর, বংশাল, ধানমন্ডি, চকবাজার, গেন্ডারিয়া, গুলশান, হাজারীবাগ, শাহবাগ, যাত্রাবাড়ী, লালবাগ, মিটফোর্ড, মোহাম্মদপুর, রাজারবাগ, শাখারিবাজার, তেজগাঁও, উত্তরা, ওয়ারি অন্যতম।
শুক্রবার (২৯ মে) রাতে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) ওয়েবসাইটের সবশেষ তথ্যানুযায়ী এ বিষয়ে জানা গেছে।

আইইডিসিআরের তথ্যানুযায়ী বৃহস্পতিবার (২৮ মে) পর্যন্ত রাজধানীর সব থেকে বেশি করোনা ভাইরাস শনাক্ত রোগী ছিল মিরপুরে (১, ২, ৬, ১০, ১১, ১২, ১৩, ১৪, পল্লবী ও পীরেরবাগ) মোট ৬৬৩ জন। এরপর মহাখালী ৪০১ জন, মুগদায় ৩১২ জন, যাত্রাবাড়ী ৩৩৯ জন, রাজারবাগে মোট ২১৪ জন, মোহাম্মদপুরে ৩০৯ জন, কাকরাইলে শনাক্ত হয়েছেন ২৯৯ জন।

এছাড়া আদাবরে ৬০ জন, আঁগারগাওয়ে ৮৯ জন, আজিমপুরে ৬৪ জন, বাবুবাজারে ১৬১ জন, বাড্ডায় ১৪৮ জন, বনানীতে ৭৮ জন, বংশালে ১০১ জন, বাসাবোতে ৯৯ জন, ক্যান্টনম্যান্ট এলাকায় ১৮ জন, চানখারপুলে ৪৮ জন, চকবাজার ৮১ জন, ডেমরায় ৩৯ জন, ধানমন্ডিতে ১৮৫ জন, ইস্কাটনে ৫৫ জন, ফার্মগেটে ৫০ জন, গেন্ডারিয়ায় ১১৫ জন, গ্রিনরোডে ৫০ জন, গুলশানে ১১১ জন, হাতিরপুলে ৩৪ জন, হাজারীবাগ ৮৩ জন, জুরাইনে ৫৪ জন, কল্যাণপুরে ৪০ জন, কলাবাগানে ৪৫ জন, কামরাঙ্গীরচরে ৫৪ জন, কারওয়ানবাজারে ২৩ জন, খিলগাঁওয়ে ১৫৮ জন, কোতোয়ালিতে ২৯ জন শনাক্ত হয়েছে।

রাজধানীর লালমাটিয়ায় ৪৩ জন, লালবাগে ১৭৩ জন, মালিবাগে ১৩৭ জন, মান্ডায় ৪২ জন, মানিকনগরে ৪৫ জন, মিটফোর্ডে ৪৭ জন, মগবাজারে ২১৫ জন, নারিন্দায় ৪০ জন, নিউমার্কেটে ১৪ জন, নাখালপাড়ায় ৩৭ জন, পান্থপথে ৩০ জন, পল্টনে ৫১ জন, পুরানা পল্টনে ২৭ জন, রামপুরায় ১০৮ জন, রমনায় ৬৮ জন, রাজাবাজারে ৩১ জন, শাহজাহানপুরে ৪১ জন, শাহবাগে ৮৭ জন, শাখারিবাজারে ৩২ জন, শান্তিনগর ৫৮ জন, শ্যামলীতে ৮৬ জন, স্বামীবাগে ৫৮ জন, শেরে-বাংলা নগরে ৫৬ জন, সূত্রাপুরে ৪৯ জন, তেজগাঁওয়ে ২০০ জন, উত্তরায় ২৭১ এবং ওয়ারিতে ১০২ জনসহ প্রায় সব এলাকায়ই কিছু না কিছু রোগী রয়েছে বলে জানা গেছে।

সম্প্রতি একটি আয়োজনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, ঢাকা সিটি করোনা ভাইরাসের অন্যতম ‘রেড জোন’। দেশের আটটি বিভাগে মোট সংক্রমণের ৮৫ শতাংশ শুধু ঢাকা বিভাগে। বাকি ১৫ শংতাশ অন্যান্য সাত বিভাগে।

(Visited ৭০ times, ১ visits today)

আরও পড়ুন

হযরত খাজাবাবা (রঃ) ও জামে আওলিয়া কেরামের পথ পূণরুদ্ধার সম্মেলন অনুষ্ঠিত
মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
মুসলিম মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড সুন্নী মুভমেন্টের সমাবেশ
মহররম ঈমানী শোক ও ঈমানী শপথের মাস, আনন্দ উদযাপনের নয় – আল্লামা ইমাম হায়াত
করোনায় সারাদেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৯৮
বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
পেপসির সঙ্গে বিষ খাইয়ে খুন, যুবকের যাবজ্জীবন
চাল আমদানির সুযোগ পাচ্ছে ১২৫ প্রতিষ্ঠান