২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ |

চিরকুমারী অ্যাথিনা ও ‘এথেন্স ‘ নামকরণ

সাধারণ বর্ণনায় অ্যাথিনাকে গ্রীক দেবরাজ জিউসের কন্যা হিসাবে বলা হয়া।অ্যাথিনাকে গ্রীক নগর সমূহের
বিশেষ করে এথেন্সের ‘প্রধান রক্ষক’ বলা হতো। তার নামানুসারেই এথেন্সের নামকরণ করা হয় ‘Αθηνα’ । দেবীদের মধ্যে একমাত্র তিনিই কঠোরভাবে সতীত্ব রক্ষা করতেন। তাই একরোপলিশের তার মূর্তি সম্বলিত🏦 টেম্পলটিকে আজও “পারথেনন” (Parthenon) বলা হয়ে থাকে।

চিরকুমারী অ্যাথিনা ‘প্যালাস অ্যাথিনা’ নামেও অভিহিত হয়ে থাকেন। কথিত আছে প্যালাস নামে তার এক প্রিয় সখী ছিল। একদিন খেলার সময় দুর্ঘটনাক্রমে তাঁর হাতেই প্যালাস নিহত হয়। শোকার্ত অ্যাথিনা নিহত সখীর স্মরণে নিজের নামের সাথে প্যালাস যুক্ত করে
নেন।

অ্যাথিনা (ζευς) জিউসের প্রথম কন্যা। মেটিসের গর্ভস্থ সন্তান জিউসের উপর প্রাধান্য বিস্তার করবে, এই ভয়ে ভীত হয়ে জিউস গর্ভবতী মেটিসকে গিলে ফেলেন। এর কিছুদিন পর জিউস মাথায় প্রচন্ড যন্ত্রণাবোধ করতে থাকেন। মনে হতে থাকে মাথা ভেদ করে কিছু একটা বের হয়ে আসতে চাইছে।অবশেষে দেব-কারিগর হেফেস্টাস কুড়াল দিয়ে জিউসের মাথা ফাঁক করে দেন। আর ঠিক সেই মুহূর্তেই পূর্ণযুবতী অ্যাথিনা রণরঙ্গিনী বেশে চতুর্দিক প্রকম্পিত করে আবির্ভুত হন। এভাবেই জন্ম হয় অ্যাথিনার।

‘সুন্দরী শ্রেষ্ঠার প্রাপ্য’ বাক্য খচিত স্বর্ণ আপেল অ্যাথিনা কে না দেয়ায় তিনি ট্রয় যুদ্ধে গ্রীক পক্ষ অবলম্বন করেন। রোমান পুরাণে অ্যাথিনাকে ‘মিনার্ভা’ বলা হয় । (পৌরাণিক গ্রন্থ অবলম্বনে)

(Visited ৬৬ times, ১ visits today)

আরও পড়ুন

মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
মুসলিম মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড সুন্নী মুভমেন্টের সমাবেশ
মহররম ঈমানী শোক ও ঈমানী শপথের মাস, আনন্দ উদযাপনের নয় – আল্লামা ইমাম হায়াত
করোনায় সারাদেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৯৮
বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
পেপসির সঙ্গে বিষ খাইয়ে খুন, যুবকের যাবজ্জীবন
চাল আমদানির সুযোগ পাচ্ছে ১২৫ প্রতিষ্ঠান
প্রধানমন্ত্রী সন্তানদের সাথে পদ্মা সেতুর সৌন্দর্য উপভোগ