১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

পহেলা জুন থেকে ১১,০০০ স্বীকৃত শরণার্থীদের আবাস সেবা থেকে উচ্ছেদের নোটিশ

আশ্রয়প্রার্থীদের আবাসের আশ্রয় বন্ধ করতে বিভিন্ন শিবির এবং ইইউ-এর ভর্তুকিপ্রাপ্ত অ্যাপার্টমেন্ট ও হোটেল সমূহ বন্ধের পদক্ষেপ নিয়ে পরিকল্পনা শুরু করেছে গ্রীক সরকার।

আগামী সোমবার( ১ জুন,২০২০)থেকে প্রায় ১১,০০০ শরণার্থীকে তাদের আবাসস্থল ত্যাগ করতে বলা হয়েছে।

গ্রীক এ়সাইলামের আইন অনুযায়ী,২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে যারা এক মাসেরও বেশি সময় ধরে উদ্বাস্তু মর্যাদা পেয়েছে, তাদেরকে এখন শিবিরসহ ভর্তুকিপ্রাপ্ত সকল সুযোগ-সুবিধা ত্যাগ করে নিজেদের বাসস্থান নিজে খুঁজে নিতে হবে।পূর্ব এজিয়ান সাগরের কস দ্বীপের ক্যাম্পে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।কারন হিসাবে বলা হয়েছে,করোভাইরাসের প্রভাবে গ্রীস এখন অর্থনৈতিকভাবে বিপদগ্রস্ত।এ ছাড়া তাদের কাছে আর কোন পথ নেই।

মিডিয়া অনুযায়ী,৬৫০০ শরণার্থী বর্তমানে ভর্তুকিপ্রাপ্ত অ্যাপার্টমেন্ট বা হোটেলে বসবাস করছেন, আরও ২৫০০ জন মূল ভূখণ্ডে অভ্যর্থনা সুবিধায় রয়েছেন এবং ১৫০০ জন নিরাপদ আশ্রয় থাকা সত্ত্বেও এখনো দ্বীপশিবিরে বসবাস করছেন।

মনে করা হচ্ছে, ভর্তুকি দেওয়া বাসস্থান থেকে সরে আসতে বাধ্য করার ফলে কিছু শরণার্থী গ্রীস ছেড়ে চলে যাবেন।তবে আশঙ্কা করা হচ্ছে, অনেকে রাস্তায় নেমে হয়তো শেষ হয়ে যাবেন।

বৃহস্পতিবার অভিবাসন মন্ত্রী নোটিস মিলারিয়াস ঘোষণা করেন, মূল ভূখণ্ডে আশ্রয়ে থাকা শরনার্থীদের ৯৩টি হোটেলের মধ্যে ৬০ টি হোটেল বন্ধ করে দেওয়া হবে।

(Visited ১৮ times, ১ visits today)

আরও পড়ুন

৪ বছর বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক প্রেরণ প্রক্রিয়া শুরু
বৈদেশিক কর্মসংস্থানের নতুন রেকর্ড করেছে বাংলাদেশ
আরব আমিরাত বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উদযাপন
আরব আমিরাতে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে মতবিনিময় সভা
ফ্রান্স ফেনী সমিতির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক কাজি জাফর নির্বাচিত
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ২০৫ শ্রমিক আটক
সাত মরদেহসহ লিবিয়া থেকে ফিরলেন ১৪৮ বাংলাদেশি
কাতার বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে বাংলাদেশি ১০১৮ শ্রমিকের মৃত্যু