২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ |

উত্তরা ইপিজেডে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে কারখানায় আগুন

নীলফামারীর সদরের উত্তরা ইপিজেডের এভারগ্রীণ প্রোডাক্ট ফ্যাক্টরী বিডি লিমিটেড নামে একটি কারখানার শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে কোম্পানীর শ্রমিকেরা। শনিবার (২৭ই জুন) সকাল ৭টা থেকে বিক্ষোভে বিক্ষোভরত শ্রমিকেরা পাঁচটি কাভার্ড ভ্যান, ১০টি মোটরসাইকেল ও কাগজপত্রসহ কম্পিউটারে অগ্নিসংযোগ করেন বিক্ষোভরত শ্রমিকেরা।
উত্তরা ইপিজেডের আগুন নিয়ন্ত্রনে নীলফামারী ও সৈয়দপুর দমকল বাহিনীর তিনটি ইউনিট কাজ করে এবং বেলা প্রায় সাড়ে বারোটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে।

এভারগ্রীণ প্রোডাক্ট ফ্যাক্টরী বিডি লিমিটেডে কর্মরত শ্রমিকেরা অভিযোগ করেন, কোম্পানী কর্তৃপক্ষ কোনো নিয়মনিতি না মেনে বিনা অহেতুক কারণ দেখিয়ে শ্রমিক ছাঁটাই করছে। চলমান করোনাকালে এই ছাটাইয়ের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। কারখানার অর্থ বাঁচাতে তারা পুরাতন শ্রমিক ছাটাই করে নতুন শ্রমিক নিয়োগ করছে। এছাড়া স্বাভাবিক সময়ে কারখানায় ১৭ হাজার শ্রমিক কাজ করলেও করোনার সময়ে ছাঁটাই করার কারণে বর্তমানে ৭ হাজার কাজ করছেন।

তারা অভিযোগ করে বলেন, শ্রমিকরা ওভারটাইম কাজ করলেও তারা ওভার টাইমের জন্য যেটি মজুরি সেটি তারা পাচ্ছে না। করোনা থেকে সুরক্ষার জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সাবান সরবরাহ করেছে কারখানা কর্তৃপক্ষ। কিন্তু মাস শেষে তারা এই স্বল্প মূল্যের এসব উপকরণ বাবদ প্রত্যের কাছ থেকে এক হাজার টাকা করে কেটে নিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঐ কারখানায় একজন কর্মরত শ্রমিক বলেন, টাকা কেটে নেওয়া, অহেতুক কারণ দেখিয়ে চাকরি থেকে বরখাস্ত এসব কিছু শুধু এই করোনাকালিন সময়ের না অনেকদিন থেকে চলে আসছে।এসব বিষয় নিয়ে কথা বলতে গেলে চাকরি হারাতে হয় আমাদের। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতেকালে সমস্যা আরো বেড়ে যাওয়ায় আজকে আমাদের প্রতিবাদে নামতে হয়েছে।

শ্রমিকদের এসব অভিযোগ বিষয়ে এভারগ্রীণ প্রোডাক্ট ফ্যাক্টরী বিডি লিমিটেড কারখানার কোনো কর্মকর্তা কথা বলতে রাজি হয়নি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার মোহাম্মদ আতিকুর রহমান বলেন, এখানে আসলে কারাখানায় কর্মরত শ্রমিকরা তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এবং তার উত্তেজিত হয় এরকম কোনো কাজ আমরা করিনি। তাদের সাথে কথা বলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পেরেছি এজন্য আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করি।

এ বিষয়ে উত্তরা ইপিজেডের জেনারেল ম্যানেজার মো. এনামূল হক বলেন, শ্রমিকদের দাবি নিয়ে এভারগ্রীণ প্রোডাক্ট ফ্যাক্টরী বিডি লিমিটেড মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা বলে সমস্যা সমাধান করা হবে। এই কোম্পানী বাদে অন্যান্য কোম্পানিগুলো বেপজার আইন অনুযায়ী সব কিছু করেন কিন্তু এটি একটু নিয়ম বহির্ভুত। এরই মধ্যে মালিক বিষয়গুলো নিয়ে শ্রমিকদের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন এবং বিষয়গুলো সমাধান করবেন বলে বলেছেন। ইতিমধ্যে মালিক পক্ষ থেকে শ্রমিকদের সকল দাবি বিবেচনা আশ্বাস দিয়েছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী তিনি বলেন, আমরা শ্রমিকদের সঙ্গে তাদের দাবি দাওয়া নিয়ে কথা বলেছি। অপরদিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করা হয়েছে। শ্রমিকদের সাথে কথা বলে তাদের বাড়ী পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। মালিকপক্ষ দাবিগুলো মেনে নিবেন বলে আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন।

(Visited ১৩ times, ১ visits today)

আরও পড়ুন

হযরত খাজাবাবা (রঃ) ও জামে আওলিয়া কেরামের পথ পূণরুদ্ধার সম্মেলন অনুষ্ঠিত
বীর মুক্তিযুদ্ধা আব্দুল আলিম এর সহধর্মীনি নুরজাহান বেগম আর নেই
ফজলে রাব্বীর আসনে নৌকার হাল ধরতে চান যারা
মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
এমপির বিরুদ্ধে উপজেলা চেয়ারম্যানকে কিল-ঘুষির অভিযোগ
বঙ্গবন্ধুর সমাধীস্থলে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের শ্রদ্ধাঞ্জলী
অসহায় মানুষের মাঝে মাংস বিতরণ করল ‘জীবন আলো’
নোয়াখালীতে প্রবাসীকে মারধর ও লুটপাটের অভিযোগ