চীনের করোনা ভ্যাকসিন জরুরি ব্যবহারে অনুমতি পেল

সিনোভ্যাক বায়োটেকের তৈরি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন শেষ ধাপের ট্রায়ালে উত্তীর্ণের অপেক্ষায় থাকলেও জরুরি ব্যবহারে মানুষের শরীরে প্রয়োগের অনুমতি দিয়েছে দেশটি।

চীনের স্বাস্থ্যকর্মীদের মতো যারা করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে আছেন, তাদের ক্ষেত্রে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে শনিবার জানানো হয়েছে।

ফার্মাসিউটিক্যাল-এর (সিনোফার্মা) একটি ইউনিট চায়না ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপও (সিএনবিজি) বলেছে গত রোববার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম উইচ্যাটের মাধ্যমে তারা এই ভ্যাকসিন প্রয়োগের অনুমতি পেয়েছে। খবর রয়টার্স ও বিবিসির।

সংক্রমণের ক্ষেত্রে উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে পরীক্ষামূলকভাবে গত মাস থেকে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে আসছে চীন। গত সপ্তাহে রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রচারিত সাক্ষাৎকারে স্বাস্থ্য বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেন, আসন্ন হেমন্ত ও শীত মৌসুমে সংক্রমণ ঠেকাতে এই ভ্যাকসিনের ব্যবহার আস্তে আস্তে বাড়ানো হবে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, গত জুনেই নির্দিষ্ট দুটি ভ্যাকসিনের প্রতিরোধ ক্ষমতা যাচাইয়ের আগেই জুলাইয়ে দুইজন আগ্রহী প্রার্থীকে তা প্রয়োগের অনুমতি দেয়া হয়েছিল। তবে এরা কারা, তা বিশদ কিছু বলেনি সরকার।

এর আগে জুন মাসে চীন থেকে বিদেশযাত্রী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সিএনবিজি’র তৈরি দুটি ভ্যাকসিনের একটি প্রয়োগের অনুমতি দেয়া হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত সাতটি প্রতিষ্ঠান করোনার টিকা তৈরি করছে। এর মধ্যে চারটি টিকাই চীনের। তবে এখনো একটি টিকাও শেষ ধাপের ট্রায়ালে উত্তীর্ণ হতে পারেনি।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

আহমদ শফী আর নেই
মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪, আহত ২০
ফের লকডাউন হতে পারে ব্রিটেন
করোনায় মৃত্যু আরও ২২ জনের, নতুন শনাক্ত ১৫৪১
গাইবান্ধায় ৫ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ৯ বছরের শিশু আটক!
দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম আরও বেড়েছে
জায়েদ এফডিসিতে নিষিদ্ধ হতে পারেন, বিপদে মিশাও
প্রথম স্বামীর হাতে দ্বিতীয় স্বামী খুন গ্রেপ্তার-১