২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

প্রধানমন্ত্রীকেও ছুঁয়ে গেল সোহেল রানার কান্না

বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের সবচেয়ে মর্যাদার স্বীকৃতি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। প্রতি বছর চলচ্চিত্রের নানা বিভাগে অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। আর চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদানের জন্য দেয়া আজীবন সম্মাননা।

২০১৯ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন অভিনেতা, প্রযোজক, পরিচালক সোহেল রানা ও কোহিনুর আক্তার সুচন্দা।
আজ ১৭ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের পদক বিতরণ অনুষ্ঠান। এ আয়োজনে সোহেল রানা সশরীরে হাজির হয়ে সম্মাননা পদক গ্রহণ করেছেন।

সম্মাননা পদক গ্রহণ শেষে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেন এ অভিনেতা। তিনি মনের অভিব্যক্তির কথা প্রকাশ করতে গিয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একপর্যায়ে উচ্চস্বরেই কেঁদে ফেলেন সোহেল রানা।

তিনি বলেন, ‘চলচ্চিত্রের জন্য প্রথম রাষ্ট্রীয় পুরস্কার নিয়েছিলাম আজকের প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে। আমি ৪৬ বছর চলচ্চিত্রের সঙ্গে আছি। এখানে কাজ করেছি। জীবনের শেষ পুরস্কারটা হয়তো পেয়ে গেছি। আর কখনোই চলচ্চিত্রের জন্য কোনো পুরস্কার আমি পাবো না। আক্ষেপ তো আছেই। শেষ পুরস্কারটা প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে নিতে পারিনি। করোনার কারণে তা হলো না।’

‘সম্মাননা পাচ্ছি। আনন্দ তো আছেই। আনন্দ হওয়ার কথা। কিন্তু মনটা খারাপ লাগছে কেন? কেন জানি খুব দুঃখবোধ হচ্ছে। আমি জানি না কেন হচ্ছে। শুধু ভাবছি, ৪৬ বছর ধরে যা কিছু পাওনা জমিয়েছি এই শিল্পে সব বুঝি এই আজীবন সম্মাননা দিয়ে শেষ হয়ে গেল’- বলতে বলতে কেঁদে ফেলেন সোহেল রানা।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

অভিনেত্রী শমী কায়সারকে মানহানির মামলা থেকে অব্যাহতি
দীঘির সিনেমার ট্রেলার নিয়ে সমালোচনা, জবাবে যা বললেন নির্মাতা
ফের প্রেমে পড়েছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়
বিজেপিতে যোগ দিলেন শ্রাবন্তী
নায়িকা বুবলীকে হত্যাচেষ্টা, অল্পের জন্য রক্ষা
বেলুনের মতো ফুলে গেছেন প্রিয়াংকা চোপড়া!
সম্পর্কের ১৪ বছর পার, তবুও প্রশ্ন টাকার জন্য বিয়ে করেছেন সালমা?
শাকিবের বিপরীতে আবারো বুবলি