২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ |

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে যাচ্ছে ৩৭ পোশাক কোম্পানি

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে যাচ্ছে ৩৭ পোশাক কোম্পানি। এ পোশাকপল্লিতে সর্বমোট ৫৯টি প্রতিষ্ঠান উৎপাদনে আসার কথা রয়েছে। সেখানে সব মিলিয়ে সাড়ে ২৫ হাজার কোটি টাকার মতো বিনিয়োগ হতে পারে।

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএকে বরাদ্দ দেওয়া জমিতে কারখানা স্থাপনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে সেখানে যাচ্ছে ৩৭টি কোম্পানি। চলতি মাসেই বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) সঙ্গে এসব কোম্পানির আলাদা আলাদা জমি লিজ চুক্তি হওয়ার কথা রয়েছে। চুক্তির পরপরই তারা শিল্পনগরে কারখানা স্থাপনের কাজ শুরু করবে বলে জানা গেছে।

বেজা থেকে পাওয়া তথ্য বলছে, বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে পোশাকপল্লি করার জন্য বিজিএমইএকে বরাদ্দ দেওয়া ৫০০ একর জমির মধ্যে ৩২১ একরজুড়ে গড়ে উঠবে শিল্পকারখানা। বাকি জমি বর্জ্য শোধনাগার ও অভ্যন্তরীণ রাস্তা নির্মাণ এবং লেকসহ বিভিন্ন পরিষেবা-সুবিধার জন্য ব্যবহার করা হবে। সেখানে মোট ৫৯টি কোম্পানি যাওয়ার কথা। প্রথম পর্যায়ে যাচ্ছে ৩৭ কোম্পানি। বাকি ২২ কোম্পানির সঙ্গে পরে চুক্তি হবে। এই পোশাকপল্লিতে সব মিলিয়ে ৩০০ কোটি ডলার বিনিয়োগের কথা রয়েছে, যা বাংলাদেশের প্রায় সাড়ে ২৫ হাজার কোটি টাকার মতো।

জানা গেছে, মুন্সিগঞ্জের বাউশিয়ায় একটি পোশাকপল্লি করতে দুই যুগ ধরে চেষ্টা করে আসছিল বিজিএমইএ। কিন্তু মালিকদের একাংশের অনীহার কারণে পোশাকপল্লির কাজ বেশি দূর এগোয়নি। বাউশিয়ায় পোশাকপল্লি করতে ব্যর্থ হওয়া ব্যবসায়ীদের এক বছরের মধ্যে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি, রাস্তাসহ সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেয় সরকার। সেই পরিপ্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে যেতে রাজি হন পোশাকশিল্প মালিকেরা।

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরের পোশাকপল্লিতে সবচেয়ে বেশি জমি পাচ্ছে অ্যাপারেল গ্যালারি লিমিটেড নামের প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠান পাবে ৩৩ একর জমি। জানা গেছে, অ্যাপারেল গ্যালারি সেখানে সাড়ে সাত কোটি ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা করছে, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৬৩৭ কোটি টাকা। এই কারখানায় সাড়ে ৯ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ একর করে জমি পাচ্ছে দুটি কোম্পানি। এর একটি হলো ইপিলিয়ন স্টাইল লিমিটেড, অন্যটি গ্লোবাল শার্ট লিমিটেড। এর মধ্যে ইপিলিয়ন ৫ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে। সে কারখানায় সাত হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

আরাফাহ ড্রেস লিমিটেড নামক প্রতিষ্ঠানের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা বেজার কাছে দুই একর জমি চেয়েছি। সেখানে আমাদের কারখানায় এক হাজারের বেশি মানুষের কর্মসংস্থান হবে। সেখানে নিজস্ব ডরমিটরি করার পরিকল্পনা রয়েছে।’ তিনি আরও বলেন ‘এত দিন সারা দেশে যত্রতত্রভাবে শিল্পকারখানা গড়ে উঠেছে। এখন পরিকল্পিতভাবে শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে। তাই আমরা আশাবাদী, মিরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগর হবে একটি পরিকল্পিত অর্থনৈতিক অঞ্চল।’

বিজিএমইএর জন্য যে ৫০০ একর জমি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে সেখানে প্রকল্প এলাকায় যাওয়ার রাস্তা করে দিয়েছে সরকার। গ্যাস-বিদ্যুৎ এবং পানির সুবিধাও রয়েছে।

(Visited ২৪ times, ১ visits today)

আরও পড়ুন

মহান জাতীয় শহীদ দিবস শাহাদাতে কারবালা দিবসে ফেনীতে র‍্যালী
মুসলিম মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড সুন্নী মুভমেন্টের সমাবেশ
মহররম ঈমানী শোক ও ঈমানী শপথের মাস, আনন্দ উদযাপনের নয় – আল্লামা ইমাম হায়াত
করোনায় সারাদেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৯৮
বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
পেপসির সঙ্গে বিষ খাইয়ে খুন, যুবকের যাবজ্জীবন
চাল আমদানির সুযোগ পাচ্ছে ১২৫ প্রতিষ্ঠান
প্রধানমন্ত্রী সন্তানদের সাথে পদ্মা সেতুর সৌন্দর্য উপভোগ