২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

সাংবাদিকদের সাথে অভিজ্ঞতা বিনিময়

জটিল পদ্ধতির চিকিৎসায় এভারকেয়ার চট্টগ্রাম-এর সাফল্য অর্জন

৪২ বছর বয়সী রোগী নুরুন্নাহারের ব্রেইন টিউমারের সফল নিউরোসার্জারির অভিজ্ঞতা শেয়ারের জন্য বৃহস্পতিবার স্থানীয় গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বদের সাথে নিয়ে একটি কর্মশালার আয়োজন করে এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম। কর্মশালায় ডাঃ মোঃ আনিসুল ইসলাম খান ও তার দল সহ সার্জারির সাথে সম্পৃক্ত কর্মকর্তাগণ সার্জারি ও এ সংক্রান্ত সকল বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা এবং সাংবাদিকদের সাথে অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন।

রোগী বিগত ৬ মাস যাবৎ মাথাব্যথার সমস্যায় ভুগছিলেন, যা ধীরে ধীরে চরম মাত্রায় বাড়তে থাকে। তিনি ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন চিকিৎসকের পরামর্শ নিলেও তেমন ভালো ফল পান নি। এদিকে পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকে, এক পর্যায়ে অসাড়তায় ভুগতে শুরু করেন এবং ধীরে ধীরে ডান হাত ও পায়ের উপর নিয়ন্ত্রণ হারান। সার্জারির কয়েক সপ্তাহ আগে রোগী কথাও বলতে পারছিলেন না। সংকটাবস্থা বিবেচনা করে রোগীর পরিবার ডাঃ খানের সাথে যোগাযোগ করেন এবং তিনি জানান রোগীর ব্রেইনের বাম পাশে বেশ বড় একটি টিউমার রয়েছে।

অবস্থা বিবেচনা করে ডাঃ খান সার্জারির মাধ্যমে টিউমার অপসারণের সিদ্ধান্ত নেন। এ ধরণের সার্জারিগুলো বেশ জটিল এবং উচ্চ পর্যায়ের ও নির্ভুল দক্ষতার প্রয়োজন হওয়ায় এই কেসটি একটু ব্যতিক্রম ছিল এবং অনেক বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। তবে ডাঃ খান এবং তার দল সাফল্যের সাথে সার্জারি সম্পন্ন করতে সক্ষম হন।

রোগীর সার্বিক অবস্থা বর্ণনা করতে গিয়ে এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম-এর সিনিয়র কনসালট্যান্ট অ্যান্ড কোঅর্ডিনেটর, ডিপার্টমেন্ট অব নিউরোসার্জারি, ডাঃ মোঃ আনিসুল ইসলাম খান বলেন, “ব্রেইন টিউমারের কিছু সাধারণ লক্ষণ রয়েছে। যেমন- মাথাব্যথা, অসাড়, বমি, খিচুনী অনুভব করা এবং আরও কিছু লক্ষণ আছে যা দ্বারা ব্রেইন টিউমারের সম্ভাব্য উপস্থিতি বুঝা যায়।
তিনি আরও বলেন, “যেহেতু রোগীর মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে টিউমারের লক্ষণ ও অন্যান্য সংশ্লিষ্ট জটিলতা দেখা দিয়েছিল, তাই অত্যন্ত জটিল হলেও সার্জারির মাধ্যমে এটি অপসারণ করাই এর উত্তম চিকিৎসা ছিল।”

এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রামের রয়েছে বিশ্বমানের মডিউলার অপারেশন থিয়েটার। অত্যাধুনিক অপারেটিং মাইক্রোস্কোপ, এন্ডোস্কোপ, ক্রানিওটোম ও ড্রিল মেশিন, সি-আর্ম মেশিন। অপারেশন থিয়েটারের পাশেই রয়েছে সকল সুবিধা ও দক্ষ জনবল সহ সার্জিক্যাল আই সি ইউ, যা নিউরো সার্জিক্যাল অপারেশন পরবর্তী সময়ের জন্য খুবই জরুরী।

ব্রেইনের বিভিন্ন অপারেশন, স্ট্রোক অপারেশন, হেড ইনজুরি, স্পাইন ইনজুরি, স্পাইনাল টিউমার পিএলআইডি, পেডিয়াট্রিক নিউরোসার্জারি সহ অন্যান্য নিউরো সার্জিক্যাল সেবা দিতে এভারকেয়ার হসপিটাল, চট্টগ্রাম প্রস্তুত।
এভারকেয়ার হাসপাতাল চট্টগ্রাম বন্দরনগরীর বৃহত্তম ও সর্বপ্রথম অত্যাধুনিক টারশ্যারি কেয়ার মাল্টিডিসিপ্লিনারি হসপিটাল। এই হস্পিটাল চালু হওয়ার পর থেকে হাসপাতালটি চট্টগ্রামে স্বাস্থ্যসেবার নতুন সংজ্ঞা দিচ্ছে এবং নগরের স্বাস্থ্য শিল্পে বেশকিছু উল্লেখযোগ্য মাইলফলক অর্জনের পাশাপাশি পুরো অর্থনীতিতে বিশেষ অবদান রেখে চলেছে।

আজকের অনুষ্ঠিত এই ওয়ার্কশপ সেশন এবং অভিজ্ঞতা বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন নীলেশ গুপ্ত, চীফ অপারেটিং অফিসার, এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম; ডা. প্রকাশ কুণ্ডুর নারাসিমহাইয়া, পরিচালক -মেডিকেল সার্ভিসেস, এভার কেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম; ডাঃ মোহাম্মদ ফজল- ই- আকবর চৌধুরী, মহাব্যবস্থাপক, মেডিকেল সার্ভিসেস, এভারকেয়ার হাসপাতাল হসপিটাল সহ আরও অনেকে।

এভারকেয়ার গ্রুপ সম্পর্কে- এভারকেয়ার গ্রুপ বিশ্বাস করে যে স্বাস্থ্যসেবা একটি মৌলিক অধিকার। উদীয়মান বাজারে বিনিয়োগের মাধ্যমে স্থানীয় জনগণের চাহিদা পূরণে প্রাইভেট ও মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ প্রতিষ্ঠানটি।

টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের দৃড় সমর্থক হিসেবে উদীয়মান বাজারে বসবাসরত সকল বয়সের মানুষের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করার বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জে সাড়া দিয়েছে এভারকেয়ার। সেই সুবাদে প্রতিষ্ঠানটি প্রচলিত স্বাস্থ্যসেবার ধারা পরিবর্তন ও রূপান্তরকরণের মাধ্যমে, ক্রস-কন্টিনেন্টস প্ল্যাটফর্মের সমন্বয়ে তাদের উন্নত ও মানসম্মত মেডিকেল সেবা সরবরাহ করছে।

বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, কেনিয়া এবং নাইজেরিয়া সহ দক্ষিন এশিয়া ও আফ্রিকার উদীয়মান বাজারজুড়ে তাদের সমন্বিত স্বাস্থ্যসেবা সরবরাহকারী প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে এভারকেয়ার।

২৯ টি হসপিটাল, ১৬ টি ক্লিনিক, ৭৫ টি ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং ২ টি ব্রাউনফিল্ড অ্যাসেটস এই প্রতিষ্ঠানের পোর্টফোলিও’র অন্তর্ভুক্ত। দেশের উদীয়মান বাজারে একটি সিস্টেম্যাটিক স্বাস্থ্যসেবা তৈরি করতে প্রায় ১০ হাজার ৩৫০ জন কর্মী নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছে। একটি বিচিত্র স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে এভারকেয়ার গ্রুপ গর্বিত।

এভারকেয়ার হেলথ ফান্ড-এর মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান এভারকেয়ার, যা উদীয়মান বাজারে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সমতুল্য রাইজ ফান্ডস পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা তহবিল, যা বৈশ্বিক বিকল্প সম্পদ ব্যবস্থাপক টিপিজি’র প্রভাব বিনিয়োগের একটি প্ল্যাটফর্ম। এভারকেয়ার স্বাস্থ্য তহবিল বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন সংস্থা এবং বিশ্বের অন্যান্য প্রভাবিত বিনিয়োগকারীদের সমন্বয়ে গঠিত একটি প্রতিষ্ঠান।

এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম সম্পর্কে – এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম, বন্দরনগরীর সর্বপ্রথম ৪৭০ শয্যাবিশিষ্ট মাল্টি ডিসিপ্লিনারী সুপার-স্পেশিয়ালিটি টারশিয়ারি কেয়ার হসপিটাল। এখানে থাকছে ২৪/৭ জরুরী বিভাগ, সর্বাধুনিক আইসিইউ সেবা এবং ২৭ টি বিশেষ ও উপ-বিশেষ বিভাগ যা পুরো অঞ্চলের ধারণক্ষমতার শূন্যস্থান পূরণে সক্ষম। ৪ লক্ষ ৯২ হাজার বর্গফুট আয়তনের উপর নির্মিত হসপিটালটিতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসমৃদ্ধ মেডিকেল সেবা ও ৫ শতাধিকেরও বেশি মেডিকেল প্রোফেশনালসদের সাথে নিয়ে চট্টগ্রামের সকল স্তরের রোগীদের সর্বোচ্চ মানের সেবা নিশ্চিৎ করবে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

বন্দরে লকডাউনে ঘুরতে বের হওয়ায় জরিমানা
মো. সোলায়মান মিয়ার পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লোকমান হোসেন আর নেই
কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে দিনরাত কাজ করছেন ইউএনও শুক্লা সরকার
র‌্যাব-১১ এর অভিযানে নাঙ্গলকোটে ইয়াবা জালনোটসহ আটক ২
চট্রগ্রামে এভারকেয়ার হসপিটালে কোভিড পজেটিভ গর্ভবতীর জটিল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন
ফেনীতে সার্ভার ত্রুটির কারণে টিকা নিবন্ধনে বিড়ম্বনার শিকার প্রবাসীরা
ছাত্রদলের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে নানামুখী ষড়যন্ত্র শিকার ছাত্রনেতা দুলাল
বিএমএসএফ ঢাকা দক্ষিনের সাধারণ সম্পাদক ইমতিয়াজ,যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান